বিআরটিএতে দুদকের অভিযান

(ইউএনবি) যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন ও ফিটনেস সনদের জন্য ঘুষ লেনদেনের অভিযোগে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) কার্যালয়ে সাঁড়াশি অভিযান চালিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

১২ জুলাই, বৃহস্পতিবার রাজধানীর মিরপুরে বিআরটিএ’র কার্যালয়ে এ অভিযান চালানো হয়।

দুদক অভিযোগ কেন্দ্রের হটলাইন ১০৬-এ প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সংস্থার ৯ জন সদস্য এ অভিযানে অংশ নেন।

দুদকের উপ-পরিচালক জাহিদ হাসানের নেতৃত্বে পাঁচ ঘণ্টা ধরে ২০টি কাউন্টারের সবগুলোতে অভিযান চালানো হয়। সেই সঙ্গে রেজিস্ট্রেশন ও ফিটনেস সনদ নিতে আসা ১০ জন গাড়ির মালিকের সঙ্গে মতবিনিময় করেন তারা। এ সময় সেবা দিতে দেরি করায় একজনকে তাৎক্ষণিকভাবে প্রত্যাহার করে নেয় বিআরটিএ।

অভিযানকালে দুদক টিমের উপস্থিতিতে কোনো ধরনের হয়রানি ও ঘুষ ছাড়াই ১০টি প্রাইভেটকারকে ফিটনেস সনদ দেওয়া হয়। এ ছাড়া দুদক টিম দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরির জন্য সেবা গ্রহীতাদের মাঝে দুর্নীতিবিরোধী স্টিকার ও লিফলেট বিতরণ করে।

এ বিষয়ে দুদকের মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী বলেন, ‘বিআরটিএ-তে বিশৃঙ্খলার মূলে হলো দুর্নীতি। তাই এ খাত থেকে দুর্নীতি শেষ করতে অভিযান চলছে।

দুর্নীতিবাজদের হাতেনাতে ধরতে বিআরটিএ কার্যালয়ে ফাঁদ টিম সব সময়ই নিয়োজিত আছে। দুর্নীতির সংস্কৃতি বন্ধ করতে জনসাধারণ যদি সহযোগিতা করেন তাহলে পরিস্থিতির উন্নতি হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here